বুধবার | ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

desh24.com.bd সবার আগে দেশের খবর
       
সবার আগে দেশের খবর

এনআইডি জালিয়াতির মাধ্যমে জাল দলিল প্রস্তুত!

দৌলতপুরে জাল দলিলে জমি দখলের চেষ্টা দিনমজুর মহিলা সর্বশান্ত হওয়ার আশংখায়

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি

দৌলতপুরে জাল দলিলে জমি দখলের চেষ্টা দিনমজুর মহিলা সর্বশান্ত হওয়ার আশংখায়

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় এক দিনমজুর দুস্থ্য মহিলার নিজ নামীয় সম্পত্তি জাল দলিলের মাধ্যমে জবর দখল করে রেখেছে একটি দাঙ্গাবাজ পরিবার বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানাযায়, দৌলতপুর উপজেলার দৌলতপুর পূর্বপাড়া গ্রামের দিনমজুর শুনজিলা খাতুন ২০০২ সালে রফিকুল ইসলাম এর নিকট হইতে ১২১৪৯ নং দলিল ও ২০০৫ সালে তজিবর রহমান এর নিকট হইতে ১৪২৬৯ নং দলিলে যথাক্রমে ৭৭নং দৌলতপুর মৌজার .০৩৫০ + .০৩৫০= .০৭০০ একর জমি খোষ কবলা দলিল মূলে ক্রয় করে দীর্ঘ ১২ বৎসর দখল স্বত্ব থাকাবস্থায় ২০১৪ সালে নিজ নামে নামপত্তন জমা খারিজ করে সরকারী খাজনা প্রদান করেন। যাহার নামপত্তন জমাখারিজ নং-৫২৭০/রী-র/২০১৩-১৪, হোল্ডিং নং-৫৮৪৯। এবং নিজ স্বত্ব দখলীয় জমির উপর কোন রকমে দিনমজুরি করে দিন যাপন করতে থাকেন। হঠাৎ আচমকা ২০১৮ সালে জমির মুল মালিক শাহ্ আলী পিতা মৃত খোদ বকস্, গ্রাম: ধলডোব, পো: বাগবাটি, থানা/উপজেলা সিরাজগঞ্জ, জেলা সিরাজগঞ্জ এর জাতীয় পরিচয়পত্র ও স্বাক্ষর জাল করে ৩৫৫৮/১৮ নং দলিলের মাধ্যমে একই বছরে ভুয়া নাম খারিজ করে উক্ত জমির মালিকানা দাবী করেন দিনমজুর শুনজিলার প্রতিবেশি উপজেলা পূর্বপাড়া’র শহিদা বেগম ও তার স্বামী সোহরাব হোসেন এবং অর্থের বিনিময়ে শুনজিলার নামে খারিজ থাকা স্বত্বেও নিজেদের নামে নামপত্তন জমাখারিজ করে নেন তারা। সেইসাথে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে দিনমজুর শুনজিলাকে তার নিজ নামীয় জমির স্বত্ব ছেড়ে দিয়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য বিভিন্ন মহল থেকে চাপ প্রয়োগ করে আসছেন। এতে করে দিনমজুরী করে ক্রয় করা জমি হারিয়ে সর্বশান্ত হওয়ার উপক্রম হয়েছে ঐ মহিলার। এদিকে ৩৫৫৮/১৮ নং খোষ কবলা দলিলের ব্যাপারে খোঁজ খবর নিতে গেলে উক্ত নম্বর দলিলের কোন অস্তিত্ব নাই বলে জানান দৌলতপুর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিস।

এদিকে মুল মালিক শাহ্ আলীর সাথে যোগাযোগ করলে সিরাজগঞ্জ থেকে তিনি বলেন, আমি চাকুরীর সুবাদে দৌলতপুরে ছিলাম এবং সেখানে ৭৭ নং দৌলতপুর মৌজার অর্ন্তভূক্ত ১৫৫৫ ও ১৫৫৬ দাগের জমি কিনেছিলাম এবং চাকুরী শেষে নিজ জেলা সিরাজগঞ্জে চলে আসার সময় উক্ত দাগের জমি সুবল মল্লিক ও রেজিয়া খাতুন নামে দুই ব্যাক্তির কাছে ১৯৭৮ সালে বিক্রয় করেছিলাম। শহিদা বেগম ও  সোহরাব হোসেন নামে কোন ব্যক্তির কাছে আমি জমি বিক্রয় করিনি আর যদি সেটা হয় ২০১৮ সালে তাহলে তো প্রশ্নই উঠে না। তিনি আরোও বলেন, নিশ্চয় তারা আমার জাতীয় পরিচয়পত্র, স্বাক্ষর ও দলিল জাল করার মাধ্যমে জমি দখলের চেষ্টা করছে এর বিচার হওয়া দরকার। প্রয়োজন হলে আমি তাদের বিচারের জন্য আদালতে স্বাক্ষী দিতে প্রস্তুত আছি বলে তিনি জানিয়েছেন।

এব্যাপারে দিনমজুর শুনজিলা খাতুন বলেন, আমি পরের বাড়ীতে কাজ করে ২০ বছর আগে জমি কিনেছি। এখন আমার প্রতিবেশি শহিদা বেগম ও তার স্বামী সোহরাব হোসেন দলিল জাল করে টাকার বিনিময়ে নিজেদের নামে খারিজ করে জমির মালিক বলে দাবী করছে। আমি সরকারের কাছে এর বিচার চাই বলে তিনি জানান।

Facebook Comments Box

Posted ৩:৫৮ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ৩০ মার্চ ২০২১

desh24.com.bd |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
               
সম্পাদক ও প্রকাশক:  এম আজাদ হোসেন    
               
   
নির্বাহী সম্পাদক:মো:ইনামুল হাসান  
              বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয় :                

শ্রীসদাস লেন,বাংলাবাজার , ঢাকা-১১০০                                           ফোনঃ ০১৯৭২-৪৭০৭৮১

ই-মেইল: infodesh24@gmail.com

           
desh24 provides you latest and the most reliable Bangla news on sports, entertainment, lifestyle, politics, technology, features and cultures.