শুক্রবার | ১৪ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩১শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

desh24.com.bd সত্যের সন্ধানে আমরা
       
সত্যের সন্ধানে আমরা

পয়-পুলাপান নিয়ে শান্তিতে শুয়ে যেতে পারি

আমারে একটা ঘর দিতে কইয়েন স্যার

সাইফুল ইসলাম, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি

আমারে একটা ঘর দিতে কইয়েন স্যার

কত জন ঘর পাইল আমার কপালে একটা ঘর হইল না। আমাকে একটা  ঘর দিতে কইয়েন স্যার, মৃত্যুর আগে পয়-পুলাপান নিয়ে নিজের ঘরে শান্তিতে শুয়ে যেতে পারি। সহায় সম্বল কিছুই নাই। দুই ছেলে মানসিক রোগী, দুই মেয়ে বিধবা এদের নিয়ে আমি  ডাঃ ইমান আলীর  ঘরের বারান্দায় থাকি। যে বারান্দায় থাকি সেখানে চার ছেলে-মেয়ে নিয়ে খুব কষ্টে আছি, জায়গা হয়না। ভাঙ্গা বেড়া, জালানা নাই। ছেঁড়া কাপড়-চোপর দিয়ে ঘেরাও করে রাত-দিন পার করছি। তবুওতো ভাঙ্গা বারান্দায় আশ্রয় পেয়েছি। তাও আবার মাঝে মধ্যে চলে যেতে বলে। শেষ পর্যন্ত আমাদের রাস্তার ধারে ঠিকানা হইব কিনা। বয়স হয়েছে ৭০ এর উর্ধ্বে এখন আর স্বাদ-আল্লাদ নাই। একটি আকুতি পাগল ছেলে মেয়ে নিয়ে যেন নিজের ঘরে থাকতে পারি। আবেগ আপ্লোত কণ্ঠে এসব কথা বলে ছিলেন বিধবা ছাহেরা বেওয়া।

খোজ নিয়ে জানা যায়, ছাহেরা বেওয়া উপজেলার জয়মন্টপ ইউনিয়নের ভাকুম গ্রামের বেপারী পাড়ার মৃত সবে বেপারীর স্ত্রী। সাত সন্তানের জননী। স্বামী থাকা অবস্থায় ছেলে সন্তান দিয়ে ভালোই দিন কাটছিল তার। স্বামী আক্রান্ত হন দূরারোগ্য রোগে । দুই মেয়ে গোলাপী ও বানু আক্রান্ত হন ক্যান্সার রোগে  । নূরে ও শহিদ মানসিক রোগী। বিধবা দুই মেয়ে নিয়ে নুন আনতে পান্তা কুড়াতে হতো সবে বেপারীর। স্বল্প আয়ের সবে বেপারীর পক্ষে তার রোগের চিকিৎসা, স্ত্রী সন্তানের ভরণ পোষনের খরচ জোগাতে হিমশিম খেতেন। সহায় সম্বল যা ছিল মেয়েদের ও নিজের চিকিৎসা করতে গিয়ে সব হারাতে হয়েছে তার। চিকিৎসার অভাবে সবে বেপারী এবং তার মেয়ে গোপালী ও বানু মারা যান। এরপর থেকে ছাহেরা বেওয়ার জীবনে নেমে আসে দুঃখের অমানিশা। শুরু হয় ছাহেরা বেওয়ার সংগ্রামী জীবন। ছাহেরা বেওয়া অন্যের বাড়ীতে মাটি কেটে, ঝি এর কাজ করে কোন রকম খেয়ে না খেয়ে ছেলে সন্তান নিয়ে দিন পার করছিল। এখন তিনি বয়সের ভারে নব্ব্যজ। নানা অসুখ বিসুখে শরীরে বাসা বেঁধেছে তার।এখন আর কাজ করতে পারেন না, কংকাল সার দেহ এক এক করে হার গোনা যাচ্ছে। অর্থের অভাবে ঔষধপত্র কিনে খেতে পারেন না । অভাব অনটন, অসুখ বিসুখ ছাহেরা বেওয়ার নিত্যদিনের সঙ্গী। এ দুর্বিসহ জীবন যেন দেখার কেউ নেই। এ যেন সেই জসিমউদ্দিনের আরেক আসমানী। ভালো খাবার তো দূরে থাক দু’বেলা দু’মুঠো ভাতও জুটেনা তাদের মুখে। বাড়ী তো নাই, অন্যের বারান্দায় পাখির বাসার মতো ছেঁড়া কাপড়ের ঘেরা একটি আশ্রয়স্থল। মানসিক দুই ছেলে, বিধবা দুই মেয়েদের নিয়ে কোন রকম ঠাসাঠাসি করে রাত্রি যাপন করেন। একটু বৃষ্টি হলেই টিনের ফুটো দিয়ে বিছানায় পানি পড়ে, তখন রাত জেগে বসে থাকতে হয় তাদের। ভাঙ্গা জানালা দিয়ে ময়লা আবর্জনা ঢুকে। ওখানেই তারা থাকেন সারা বছর ধরে। বড় ভাই ফাকু বাবা মারা যাবার পর স্ত্রী-সন্তান নিয়ে অন্যত্র চলে গেছন । মা-বোনের প্রতি কোন দায়িত্ব নেই তার। আর দুই ভাই নূরে ও শহিদ মানসিক রোগী এখানে সেখানে ঘুরে বেড়ানোই তাদের কাজ। সংসার জগৎ কি তা তারা  জানে না। মায়ের সংসার চালানোর জন্য বিধবা আমেরজান রাস্তায় মাটি কাটার  ও অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে কোন রকম সংসার চালাচ্ছেন। সংবাদকর্মী, নূরে পাগলার ছবি তুলতে গেলে ক্ষোভে দুঃখে তার মুখ ঢেকে আবল তাবল বলতে বলতে অন্যত্র চলে যান।

ছাহেরা বেওয়া বলেন, ছেলেরা মানসিক রোগী ও মেয়েরা বিধবা এদের নিয়ে এই বয়সে কি যে কষ্টে আছি তা কেউ খবর রাখে না। ঘরে চাল নাই, মেয়ে আমেরজান ৫ দিন যাবৎ কাজে গেছে এখনও ফিরে আসে নি। গ্রামে গ্রামে ঘুরে কিছু চাল ও ভাত পাই তাই দিয়ে কোন রকম দিন পার করছি। এই বারান্দাও ছাড়তে হবে। মাঝে মধ্যে চলে যেতেও বলে। ভাসা পানার মতো আজ এখনে কাল ওখানে। আর কত দিন ভাসবো এই দুঃখের সাগরে। আমার আকুতি, হাসিনা সরকারকে আমারে একটা ঘর দিতে কইয়েন মৃত্যুর আগে যেন পয়-পুলাপান নিয়ে শান্তিতে শুয়ে যেতে পারি।

প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার বলেন, ছাহেরা বেওয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই। ঘরের তালিকা করে থাকে সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যানরা। অসহায় ছাহেরা বেওয়ার ঘর পাওয়ার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুনা লায়লা বলেন, যদি ঘরের তালিকায় ছাহেরার নাম না থাকে তাহলে তার ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে আমার কার্যালয়ে আসতে বলেন, দ্রুত ঘর পাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

 

 

 

Facebook Comments Box

Posted ৩:২৪ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১

desh24.com.bd |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
এম আজাদ হোসেন,  সম্পাদক ও প্রকাশক    
মো: মারুফ হোসেন, বার্তা সম্পাদক
মো: ইনামুল হাসান, নির্বাহী সম্পাদক
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় :                

শ্রীসদাস লেন,বাংলাবাজার , ঢাকা-১১০০ ফোনঃ ০১৯৭২-৪৭০৭৮১

ই-মেইল: infodesh24@gmail.com

           
Desh24 provides you latest and the most reliable Bangla news on sports, entertainment, lifestyle, politics, technology, features and cultures.